বেগম জিয়া জেলে রাজার হালে আছেন, শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অপারেশন ক্লিন হার্টের নামে বাংলাদেশে হত্যার রাজনীতিকে বিএনপিই প্রথম বৈধতা দিয়েছিল।

বুধবার (০৪ ডিসেম্বর) বিকেলে গণভবনে আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন। এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, বেগম জিয়া জেলে রাজার হালে আছেন।

আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতি করে না জনিয়ে, শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক ধারা নস্যাৎ করার অপচেষ্টা করছে বিএনপি। দলের কার্যনির্বাহী সংসদ ও দলীয় প্রধান মনোনীত সাংগঠনিক জেলা ইউনিটের নেতাদের নিয়ে মোট ১৮০ জনের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত এই গুরুত্বপূর্ণ ফোরামের সভায় সভাপতিত্ব করেন শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, তিন মেয়াদে ক্ষমতায় থেকে আওয়ামী লীগ উন্নয়নের পাশাপাশি দৃষ্টান্ত গড়েছে প্রতিহিংসামুক্ত রাজনৈতিক সংস্কৃতির। সভায় আসন্ন কেন্দ্রীয় সম্মেলনের বাজেটসহ অন্যান্য সাংগঠনিক বিষয় নিয়েও আলোচনা করেন আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্যরা।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘মানুষ হত্যা, আগুন দিয়ে পুরানো, এতিমের টাকা আত্মসাৎ, দুর্নীতি, একুশের আগস্টে গ্রেনেড হামলা করে আইভি রহমানসহ মানুষ হত্যা। সব বিএনপি করে। জিয়াও যেমন খুনি ছিল খালেদা জিয়াও আরেক খুনি তার ছেলেও খুনি। এই পরিবারটাই খুনের পরিবার।’

তিনি আরো বলেন, ‘খালেদা জিয়া অসুস্থতার অজুহাতে কোর্টেও যায় না। তার বিরুদ্ধে গেটকো কেস, নাইকোর কেস। এই সমস্ত তথ্য কিন্তু আমাদের না। অ্যামেরিকা থেকে এই তথ্য বের হয়েছে। জেল খানায় সে ভালো রাজার হালে আছে। জেলখানা থেকে হাসপাতালে তার জন্য মেড দেওয়া হয়েছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘পৃথিবীতে শুনি নাই সাজাপ্রাপ্ত আসামির জন্য আবার কাজের বুয়া থাকে। মানুষ এমনি কাজের বুয়া পায় না। খালেদা জিয়ার জন্য কারাগারে স্বেচ্ছায় একজন কারাবরণ করেছে খালেদা জিয়ার সেবা করার জন্য। এত দূর সুবিধা তাকে দেওয়া হচ্ছে কারণ আমাদের মধ্যে প্রতিহিংসা পরায়নত নাই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *