আবরার হত্যার প্রতিবাদে জবিতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিলে ছাত্রলীগের হামলা

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে জবি শাখা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিলে ছাত্রলীগ হামলা করেছে। আজ বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাশ ভবনের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে সহসভাপতি মিজানুর রহমান নাহিদ, যুগ্ম সম্পাদক আলি হাওলাদার, মিজানুর রহমান শরীফ ও জাহিদসহ ১০ জন আহত হয়। এ সময় যুগ্ম সম্পাদক আলি হাওলাদার ও জাহিদকে আটক করে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কাঁঠালতলায় সমবেত হয় শাখা ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। এখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সামনে থেকে আবরার হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবি নিয়ে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে ছাত্রদল। মিছিলটি অবকাশ ভবনের সামনে আসলে পেছন থেকে শাখা ছাত্রলীগের ৮-১০ কর্মী তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। তারা ছাত্রদলের বেশ কয়েকজনকে মারধর করে। এ সময় ছাত্রদলের অন্যান্য পালিয়ে গেলেও মীজানুর রহমান নাহিদ নামের এক ছাত্রদল নেতাকে ধরে বেধড়ক মারধর করা হয়। এতে তার মাথা ফেটে যায়। পরে তাকে ছাত্রলীগকর্মীরা প্রক্টর অফিসে নিয়ে আসে। এ সময় তার চিকিৎসার জন্য প্রক্টর অফিস পুলিশ পাহারায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এ ছাড়া যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান শরীফের ডান হাত ভেঙে গেছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোস্তফা কামালের সঙ্গে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগযোগ করার চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শাহিদুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের তেমন কোনো ঘটনা ঘটেনি। এতে কয়েকজন আহত হয়েছে তাদের চিকিৎসা চলছে। এ বিষয়ে কাউকে আটক করা হয়েছে কি-না আমার জানা নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *