গবেষণা বলছে গাঁজাতেই মাইগ্রেন সমস্যার নিস্তার

গাঁজা একটি ক্ষতিকারক মাদক হিসেবে পরিচিত। যার আছে অনেক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। এই নেশা ধরলে তিলে তিলে মৃত্যুর দিক ধাবিত হতে হয় চিকিৎসকেরা সবসময় সেটি বুঝিয়ে থাকেন। এত অপকারি একটি মাদক কখনও উপকারি হয়ে উঠতে পারে এটি হয়তো অনেকেরই জানার বাইরে। তবে আশ্চর্য হলেও সমীক্ষা বলছে যারা নিয়মিত মাইগ্রেনে ভোগেন তারা নিস্তার পাবেন গাঁজা টানলে।

তবে নেশার উপকরণের বদলে এটিকে আয়ুর্বেদিক জড়িবুটি হিসেবে ব্যবহার করা হলে তবেই উপকার মিলবে। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এসব তথ্য।

সমীক্ষা ধরে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে গাঁজার মধ্যে থাকা ক্যানবিনাইডস আর টেপ্রনিস মাথাব্যথা কমানোর নেপথ্য উপাদান হিসেবে কাজ করে। তীব্র মাথাব্যথা বা মাইগ্রেনের সময় গাঁজার গন্ধ শুঁকলে ব্যথার তীব্রতা অনেকটাই সহ্যের মধ্যে আসে।

ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক এবং সহ অধ্যাপক কেরি কাটলারের মতে, ‘এই গবেষণার সময় অনেকেই জানিয়েছিলেন যে মাথাব্যথা এবং মাইগ্রেনের ব্যথায় গাঁজা টানলে কিছুটা আরাম মেলে।’

সম্প্রতি, জার্নাল অফ পেইনে প্রকাশিত এক গবেষণায় গবেষকরা স্ট্রেনপ্রিন্ট অ্যাপের মাধ্যমে গবেষণা করেছেন। এই গবেষণা চলাকালীন, গাঁজার আগে এবং গাঁজা টানার পরে মাথাব্যথা এবং মাইগ্রেনের রোগীদের অবস্থা পরীক্ষা করা হয়েছিল। তারপরে তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়েছিল।

১ হাজার ৩০০ এরও বেশি রোগী গবেষণার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। গবেষণার সময় বিশেষজ্ঞরা খুঁটিয়ে দেখেছিলেন, নিয়মিত গাঁজা টানলে আদৌ মানুষের স্বাস্থ্যহানি হয় কিনা।

গবেষণা বলছে, নির্দিষ্ট মাপে গাঁজা টানলে তা ওষুধের বিকল্প। এর থেকে এমন কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায় না যাতে রোগীর অবস্থা আরও খারাপ হয়ে ওঠে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *